ফ্যাশন ডিজাইনার পেলেন রোকেয়া পদক

নারী শিক্ষার বিস্তার, নারীর সামাজিক অধিকার প্রতিষ্ঠা, নারী জাগরণ এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য সরকার প্রতি বছর বেগম রোকেয়া পদক দিয়ে থাকে। এ বছর বিভিন্ন পেশার মানুষ কে পেছনে ফেলে প্রথম বার কোন ডিজাইনার রোকেয়া পদক পেয়েছেন।তিনি আর কেও নন আমার, আপনার গর্ব ফ্যাশন ডিজাইনার “বিবি রাসেল”।

বিবি রাসেলর স্বীকৃতি দেশিও পোশাক শিল্পকে এক ধাপ এগিয়ে নিয়েছে ও তরুন প্রজন্মকে দেশিও ফ্যাশনের প্রতি আগ্রহী হতে অনুপেরনা যোগাবে।

 

দেশীয় উপাদানে পোশাকের নান্দনিক সকশায় ও তাঁতশিল্প ও তাঁতীদের আর্থসামাজিক উন্নয়নে  অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে এই পদক পান বিবি রাসেল।বিবি রাসেল  পদক পাওয়ার পর বিবি রাসেল তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আজকে আমার জন্য খুবই খুশির দিন। জীবন চলার পথে যখন আমার একটা শক্তির দরকার, তখনই বেগম রোকেয়া পদক পেলাম। আমি অনেক খুশি। লন্ডন কলেজ অব ফ্যাশন থেকে ফ্যাশন ডিজাইনে স্নাতক ডিগ্রিধারী বিবি রাসেলের জন্ম ১৯৫০ সালে চট্টগ্রামে। বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের উন্নয়ন, তাঁতশিল্প ও তাঁতীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে এখনও কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। ১৯৭৬ সালে মডেলিংয়ে ইউরোপে খ্যাতি অর্জনের পর বাংলাদেশের খাদি ও জামদানি শিল্পের উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে ১৯৯০ সালে ঢাকায় ফেরেন বিবি রাসেল। বাংলাদেশের বয়নশিল্পীদের উন্নয়ন এবং মানুষের মর্যাদা প্রতিষ্ঠা, উন্নয়ন ও দারিদ্র দূরীকরণের লক্ষ্যে তাঁতশিল্পের প্রসারে অঙ্গীকারের জন্য বিবি রাসেল জাতিসংঘের ‘ডিজাইনার ফর ডেভেলপমেন্ট’ উপাধি পান। দেশীয় উপাদানে নান্দনিক পোশাক ডিজাইনের অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ২০০৯ সালে বাংলা একাডেমি তাকে সম্মানসূচক ফেলোশিপ দেয়। এছাড়া দেশি বিদেশি বিভিন্ন সংস্থা-প্রতিষ্ঠান থেকে ফেলোশিপ ও সম্মাননা পেয়েছেন। পরিচ্ছদ ডিজাইনের জন্য বিবি রাসেল ২০১০ সালে বাংলাদেশ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll Up