লাইফসাপোর্ট থেকে আইসিইউ তে আজিজুল হাকিম, বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন স্ত্রী ও ছেলে

লাইফসাপোর্ট থেকে আইসিইউ তে আজিজুল হাকিম, বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন স্ত্রী ও ছেলে

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১২ নভেম্বর দিবাগত রাত ১টা থেকে লাইফ সাপোর্টে আনার পর এমন খবরে টিভি মিডিয়ায় তৈরি হয় গভীর উৎকণ্ঠা। তবে রবিবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যা নাগাদ স্বস্তির খবর পাওয়া গেলো। জানা গেলো, আজিজুল হাকিমকে লাইফ সাপোর্ট থেকে সরিয়ে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র বা আইসিইউ-তে স্থানান্তর করা হয়। কারণ, লাইফ সাপোর্ট ছাড়াই আজিজুল হাকিম এখন শ্বাস নিতে পারছেন। সার্বক্ষণিক ডা. মহিউদ্দিনের তত্বাবধানে রয়েছেন আজিজুল হাকিম। তার স্ত্রী এবং একমাত্র ছেলে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। তারাও কিছুটা ভালোর দিকে। তার স্ত্রী বিশিষ্ট নাট্যকার জিনাত হাকিম বলেন, ‘রবিবার সন্ধ্যা থেকে লাইফ সাপোর্ট থেকে সরিয়ে আজিজুল হাকিমকে এখন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ড. মহিউদ্দীনের তত্ত্বাবধানে তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা চলছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চিকিৎসার মাধ্যমে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতির জন্য নিরলস চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।’
তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন। অনুরোধ করেছেন, অনুমাননির্ভর কোনও তথ্য সংবাদমাধ্যম বা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে না প্রকাশের জন্য। তিনি আপ্লুত হয়েছেন এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এর প্রতি এবং আরও কৃতজ্ঞ মেয়র আতিকুল ইসলাম, আসাদুজ্জামান নূর, এমপি, নাট্যজন মামুনুর রশীদ, তথ্য সচিব, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী, অভিনেত্রী সূবর্ণা মোস্তাফা, নাট্যকার সংঘ, ডিরেক্টর গিল্ডস, অভিনয় শিল্পী সংঘ, সুজিত দা, শুভ্র দা, আমার বোনের ছেলে ড. জামিল, ড. রবিন সহ আরও অনেকের প্রতি। সার্বক্ষণিক এরা খোজ খবর নিয়েছেন, এবং হাসপাতালে সার্বক্ষণিক সেবায় নিয়োজিত ছিল। কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষা আমার নেই। মানুষ এভাবে একজন শিল্পীকে ভালোবাসতে পারে তা আমি নিজ চোখে দেখলাম। তথ্যমন্ত্রী আমাদের পরামর্শ দিয়েছেন আজিজুল হাকিম যেন সুস্থ হলেও সাতদিন আরও বেশি সময় হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। এতে করে সঠিক স্বাস্থ্য সেবাটা পাবেন। এছাড়া সংবাদকর্মীরাও সার্বক্ষণিক খোাঁজ নিয়েছেন। আরও অনেকের নাম মনে করতে না পারলেও সবার প্রতি ভালবাসা ও কৃতজ্ঞতা রইল। মহান সৃষ্টিকর্তা যেন সবাইকে ভালো রাখেন সুস্থ রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *